ইলেকট্রিকাল ধাঁধা প্রশ্ন ও উত্তর (part-2)

Q1. সাব-স্টেশন ক্যালকুলেশন করতে হলে যা যা করতে হবে?

উওরঃ

লোড ক্যালকুলেশান: আমরা একটি লোড ধরে নিলাম = 624.368 KW = 624.368/0.8 = 780.46 KVA

সাব-স্টেশন ক্যালকুলেশন করতে ৪ টি ধাপ অনুসরন করতে হবে।

  • Transformer Selection
  • LT Switchgear Selection
  • HT Switchgear Selection
  • PFI Panel Selection


Transformer Selection

ট্রান্সফরমার নির্বাচন এখানে আমাদের যত KVA লোড তার কাছাকাছি 3 Phase Transformer Selection করতে হবে।


এখানে 780.46 KVA আমাদের লোড হলে বাজারে সাধারনত নিম্মের KVA Transformer পাওয়া যায়।

100 kVA, 200 KVA, 250 KVA, 315 KVA,400 KVA, 500 KVA, 630 KVA,750 KVA,800 KVA,1000 KVA, 1250 KVA.

সুতরাং আমাদের 800 KVA Transformer লাগবে।


LT Switchgear Selection

Transformer Capacity কে 1.4 (approx.) গুন দ্বারা করলে LT Switchgear এর capacity পাওয়া যায়।

সুতরাং 800 KVA Transformer এর জন্য LT Switchgear লাগবে = 800 x 1.4=1120 A


HT Switchgear Selection

এইচ টি সুইচগিয়ার ক্যাপাসিটি সিলেকশন বলতে এখানে মুলত Breaker Selection কে বুঝায় । Transformer 630 KVA এর নিচে হলে LBS আর Transformer 630 KVA বা তার বেশি হলে (VCB- Vacuum Circuit Breaker) ব্যবহার করতে হবে।

সুতরাং এখানে 800 KVA Transformer এর জন্য (VCB - Vacuum Circuit Breaker) ব্যবহার করতে হবে।


PFI Panel Selection

ট্রান্সফরমার ক্যাপাসিটিকে 0.6(sine thita) দ্বারা গুন করলে PFI Panel এর capacity পাওয়া যায়। সুতরাং 800 KVA এর জন্য PFI Panel হবে = 800 x 0.6=480 KVAR.


Q2. প্রশ্নঃ HT/LT সুইচগিয়ারে কোন ধরনের সার্কিট ব্রেকার ব্যবহার করা হয়?

উওরঃ

HT/LT সুইচগিয়ারে মূলত

LT Switchgear = MCB, MCCB, ACB

HT Switchgear = VCB ব্যবহার করা হয়।


Q3. প্রশ্নঃ 500 KVA ট্রান্সফরমার HT সুইচগিয়ারের জন্য কোন ধরনের সার্কিট ব্রেকার ব্যবহার করা হয়?

উওরঃ 500 KVA ট্রান্সফরমার HT সুইচগিয়ারের জন্য VCB সার্কিট ব্রেকার ব্যবহার করা হয়।


Q4. প্রশ্নঃ 350 KVA ট্রান্সফরমার HT সুইচগিয়ারের জন্য কোন ধরনের সার্কিট ব্রেকার ব্যবহার করা হয়?

উওরঃ 350 KVA ট্রান্সফরমার HT সুইচগিয়ারের জন্য LBS ব্যবহার করা হয়।


Q5. প্রশ্নঃ LBS, VCB, MCCB, MCB, ACB কি?

উওরঃ

  • LBS (Load Break Switch)
  • MCB (Miniature Circuit Breaker)
  • MCCB (Moulded Case Circuit Breaker)
  • ACB (Air Circuit Breaker)
  • VCB (Vacuum Circuit Breaker)


Q6. প্রশ্নঃ বাস-বার কি?

উওরঃ মোটামোটি সবাই জানি বাসবার হচ্ছে এক ধরনের তামা(copper) বা অ্যালুমোনিয়াম(Aluminum) এর তৈরি পরিবাহির পাত বা পরিবাহির বার অথবা পরিবাহির রড। বাসবার একাদিক ইলেকট্রিক্যাল সার্কিট থেকে ইলেকট্রিক্যাল এনার্জি সংগ্রহ করে এবং বিতরন করে।


Q7. প্রশ্নঃ কিসের উপরের ভিত্তে করে বাস বার সিলেকশন করা হয়?

উওরঃ লাইনের কারেন্টের উপর ভিত্তি করে বাসবার সিলেকশন করা হয়।


Q8. প্রশ্নঃ কেন বাসবার সিলেকশনের ক্ষেত্রে কপার নেয়া হয়?

উওরঃ কারন কপারের ইফেসিয়েন্সি অনেক বেসি এবং লস কম হয়।


Q9. প্রশ্নঃ CT & PT কি?

উওরঃ

CT কারেন্ট ট্রান্সফরমার

PT পোটেনশিয়াল ট্রান্সফরমার


Q10. প্রশ্নঃ সাবস্টেশন লাইনে CT & PT কিভাবে কানেকশন করা হয়?

উওরঃ CT সিরিজে কানেকশন দেয়া হয়

PT প্যারালালে কানেকশন দেয়া হয়


Q11. প্রশ্নঃ CT কত প্রকার ও কি কি?

উওরঃ

কারেন্ট ট্রান্সফরমার ৩ ধরনের,

  • Wound Current Transformer
  • Toroidal Current Transformer
  • Bar-type Current Transformer


Q12. প্রশ্নঃ CT 5P 20 30VA রেটিং মানে কি বোঝায়?

উওরঃ

5= % of Error

P= Protection Class

20=Multiply by 20 line current

30VA= Barden of circuit breaker


Q13. প্রশ্নঃ CT & PT কোন ধরনের ট্রান্সফরমার?

উওরঃ CT & PT হচ্ছে ইন্সট্রোমেন ট্রান্সফরমার


Q14. প্রশ্নঃ CT & PT প্রার্থক্য কি?

উওরঃ 

  • হাই কারেন্ট পরিমাপ করে এবং লাইন কে অনাকাঙ্ক্ষিত কারেন্ট থেকে রক্ষা করে।
  • হাই ভোল্টেজ পরিমাপ করে এবং লাইন কে অনাকাঙ্ক্ষিত ভোল্টেজ থেকে রক্ষা করে।


Q15. প্রশ্নঃ CT & PT তে কোন ধরনের রিলে ব্যবহার করা হয়?

উওরঃ

  • IDMT Relay
  • Deferential relay
  • Directional relay etc

Q16. প্রশ্নঃ সাবস্টেশানে কেন পাথর ব্যবহার করা হয়?

উওরঃ

১) Ground Potential Rise (GPR) কমানোর জন্য।

উচ্চ ভোল্টেজের লাইন হতে গ্রাউন্ডে কারেন্ট প্রবাহিত হয়। পাথর গ্রাউন্ডের রেজিস্ট্যান্স বৃদ্ধি করে উক্ত কারেন্টকে নিয়ন্ত্রণ করে।

 

২) Step Potential এবং Touch Potential কমানোর জন্য।

উচ্চ ভোল্টেজের কোন ফিল্ডে গতিশীল কোন দু'পায়ের স্তন্যপায়ী প্রাণীর দুইপায়ের মধ্যবর্তী ভোল্টেজকে Step Potential বলা হয়।

সাবস্টেশানের গ্রাউন্ডিং দুর্বল হলে অথবা পটেনশিয়াল ইনব্যালেন্স অবস্থার সৃষ্টি হলে; সাবস্টেশানে হাটার সময় দুইপায়ের মধ্যবর্তী স্থানে ভোল্টেজ ডিফারেন্স সৃষ্টি হয়ে শক পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

পাথর থাকলে রেজিস্ট্যান্স বৃদ্ধি পায়, শকের ঝুঁকি কমে। Touch Potential হচ্ছে কোন ইলেক্ট্রিক্যাল যন্ত্র হাতে ধরে কাজ করার সময় মানুষের হাত ও পায়ের মধ্যবর্তী ভোল্টেজ। এই ভোল্টেজ বেশি হলে বৈদ্যুতিক শক পায় মানুষ।

 

৩) সাবস্টেশানে ঘাস ও আগাছা জন্মানো রোধ করে পাথর। পাথরের পরিবর্তে মাটি থাকলে দ্রুত গাছপালা উঠে। বৃষ্টি হলে কাঁদামাটিতে পিচ্ছিল হয়ে যায়।

 

৪) পাথর ব্যবহারের কারনে সাপ, ইঁদুর, ব্যাঙ এবং অন্যান্য ছোটপ্রানীর চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এদের চলাচলের কারনে উপকেন্দ্রের যন্ত্রপাতি শর্টসার্কিট হয়ে যেতে পারে।

 

৫) পাথরে লিকেজ তেল জমতে পারে না। ফলে অগ্নিকাণ্ডের ঝুঁকি কমে।

 

৬) পাথর কংক্রিট ঢালাইয়ের চেয়ে খরচ কম এবং পাথর সরিয়ে সহজে গ্রাউন্ডিং পরিবর্তন ও নতুন গ্রাউন্ডিং করা যায়।

*

Post a Comment (0)
Previous Post Next Post